বৃহস্পতিবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৯



অনেক অনলাইন রাষ্ট্রের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে সংবাদ পরিবেশন করছে: তথ্যমন্ত্রী


আলোকিত সময় :
28.01.2019

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, দেশের অনেক অনলাইন সমাজ ও রাষ্ট্রের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে সংবাদ পরিবেশন করছে। কিছু অনলাইনের এ দায়বদ্ধতা নেই। সম্প্রচার নীতিমালা পাস হলে অনলাইনগুলো নিবন্ধন করা হবে। ইতোমধ্যে অনেক অনলাইনের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে।

আজ রবিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু হলে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে তথ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, প্রতি ২-১ ঘণ্টা পর পর আমি অনলাইনে ঢুকি। নতুন প্রজন্মের অনেকে পত্রিকা পড়ে না। আমি অনলাইনে আপডেট জানার পরও সকালে পত্রিকা পড়ি। এটি আমার অভ্যাস।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে তথ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব দেবেন এটা কখনো ভাবিনি। কলেজ জীবনে আমি অনেক মাইকিং করেছি। দলের পক্ষে অনেক প্রেস রিলিজ লিখেছি। প্রধানমন্ত্রী দলের ও রাষ্ট্রের মাইক আমার হাতে ধরিয়ে দিয়েছেন। ছয় বছর দলের পক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে ওঠাবসা আমার।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমি দায়িত্ব নেওয়ার শুরু থেকে সাংবাদিকদের অমীমাংসিত বিষয়গুলোর সমাধান করার চেষ্টা করছি। আমি স্বপ্রণোদিত হয়ে জাতীয় প্রেস ক্লাবে গেছি। রিপোর্টাস ইউনিটিতে গেছি। আজ নিজের শহরে সাংবাদিকদের মিলনমেলায় আসতে পেরেছি। নির্বাচনের পর নতুন সরকারের মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকে তথ্য মন্ত্রণালয় প্রস্তাব উত্থাপন করেছে।

নবম ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়ন নিয়ে তিনি বলেন, মূলত পত্রিকার জন্য ওয়েজবোর্ড ছিল। টেলিভিশনের পাশাপাশি দেশে অনেক এফএম রেডিও আছে। তাদেরও সম্প্রচার নীতিমালার আওতায় আনা হবে।

তিনি বলেন, দেশ বহুদূর এগিয়েছে। বদলে যাওয়ার ভেতর দিয়ে যাচ্ছি বলে আমরা অনুধাবন করছি না। কবিতায় কুঁড়েঘর আছে বাস্তবে নেই। সন্ধ্যার পর ‘মা একমুঠো ভাত দাও’ সেই ডাক শোনা যায় না। খালি পায়ে মানুষ দেখা যায় না বলেও জানান তিনি।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি