বুধবার ১৪ নভেম্বর ২০১৮
  • প্রচ্ছদ » রাজনীতি » গণতন্ত্রবিরোধীদের বিরুদ্ধে ওমর ফারুকের শপথ
    দেশের গণতন্ত্র রক্ষায় সদা জাগ্রত থাকতে হবে যুবক-তরুণদের



গণতন্ত্রবিরোধীদের বিরুদ্ধে ওমর ফারুকের শপথ
দেশের গণতন্ত্র রক্ষায় সদা জাগ্রত থাকতে হবে যুবক-তরুণদের


আলোকিত সময় :
09.11.2018

প্রতিবেদক, আলোকিত সময়, ঢাকাঃ   একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন এর তফসিল ঘোষনা উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ  ৮ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) সন্ধ্যা ৬.০০টায় ধানমন্ডি ৩২ এ রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও অগ্রগতি এগিয়ে নিতে ও সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাড়াঁতে সমাবেশ ও শপথ গ্রহন অনুষ্ঠিত।

এ সময় যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ ‘জনগণের ক্ষমতায়ন’ এর পতকাবাহী সংগঠন। আর জনগণের ক্ষমতায়নের এক বড় উৎসব হলো জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এই নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করে জনগণ জানান দেন যে তারাই প্রজাতন্ত্রের মালিক। আর জনগণের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার লড়াইয়ের মূল নেতা হলেন রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা। আজ দেশে জনগণের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ‘জনগণের ক্ষমতায়ন’ দর্শনে দেশ চলছে। জনগণের অধিকার অব্যাহত রাখতে এবারের নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।জনগণের ক্ষমতায়নের মাধ্যমে উন্নয়নে ধারা অব্যাহত রাখার নির্বাচন হবে এই নির্বাচন।

এবারের নির্বাচন হবে একটি ব্যতিক্রমধর্মী নির্বাচন। কারণ প্রায় আট কোটি ভোটারের মধ্যে তিন কোটি বিশ লক্ষ ভোটারই তরুণ।এই নির্বাচনের জয়-পরাজয় নির্ধারণ করবে যুবক-তরুণ প্রজন্মের ভোটাররা। কাজেই ভবিষ্যতের বাংলাদেশ কেমন হবে কিংবা কোন পথে চলবে সে বিষয়ে যুব-তরুণরাই এবার সিদ্ধান্ত নেবে। যুব-তরুণরাই হবে পথ নির্দেশক,৭১ সালে হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে এবার হবে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার দর্শন‘জনগণের ক্ষমতায়ন’এর নেতৃত্বে।বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ যুব-তারুণ্যের পথিকৃৎ সংগঠন। তাই অতীতের নির্বাচনগুলোর চেয়ে এবারের নির্বাচনে যুবলীগের দায়িত্ব-কর্তব্য অনেক বেশি। কারণ যুব-তরুণরা যদি ভোট দেয়, ভোট উৎসব করে তাহলে যুব-তরুণদের কাঙ্খিত বাংলাদেশ গড়া সম্ভব হবে। আর যুব-তরুণদের কাঙ্খিত বাংলাদেশ হলো উন্নত, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ যে বাংলাদেশের স্বপ্ন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেখেছিলেন। কাজেই আসুন, উন্নয়নের মহাসড়ক ধরে বাংলাদেশের যে অগ্রযাত্রা চলছে তা যেন ব্যাহত না হয় সে লক্ষ্যে কাজ করতে আজকে থেকেই আমরা ঝাপিয়ে পড়ি। বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে ও সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করতে যুব সমাজ আজ ঐক্যবদ্ধ।

যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ হারুনুর রশীদ এর পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন প্রেসিডিয়াম সদস্য শহীদ সেরনিয়াবাত, মজিবুর রহমান চৌধুরী, মাহবুবুর রহমান হিরন, আব্দুস সাত্তার মাসুদ, মো: আতাউর রহমান, এড. বেলাল হোসেন, অধ্যাপক এবিএম আমজাদ হোসেন, আনোয়ারুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক সুব্রত পাল, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহা: বদিউল আলম, ফজলুল হক আতিক, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য কাজী আনিসুর রহমান, মিজানুল ইসলাম মিজু, ডা: সাজ্জাদ হায়দার লিটন, আনোয়ার হোসেন, শ্যামল কুমার রায়, রফিকুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর উত্তর সভাপতি মাইনুল হোসেন খাঁন নিখিল, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, দক্ষিন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাইনুদ্দিন রানা, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী যুবলীগ নেতাকর্মীদের নিয়ে শপথ পাঠ করান ও শপথ শেষে জাতিরপিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর প্রকৃতিতে পুষ্পার্ঘ নিবেদন করেন।

নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের শপথ

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, এই মর্মে শপথ গ্রহণ করছে যে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বাংলাদেশের গণতন্ত্র, উন্নয়ন এবং অগ্রযাত্রার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এবারের নির্বাচনে বিপুল সংখ্যক যুবক-তরুণ ভোটার ভোট প্রদাণ করবে। তারাই এবারের নির্বাচনের মূল শক্তি।

আমরা শপথ করছি যে, এবারের নির্বাচন যুব-তারুণ্যের ভোট উৎসব।যুব-তারুণ্যের এই ভোট উৎসবে যুব- তারুণ্যকে নেতৃত্ব প্রদাণকারী বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ যুবক-তরুণদের সংগঠিত এবং উদ্দীপ্ত করবে।

আমরা শপথ করছি যে, যুবক-তরুণরা যেন এদেশের গণতন্ত্রকে রক্ষার জন্য ও গণতন্ত্রবিরোধী সকল ষড়যন্ত্র বানচালের জন্য সদা জাগ্রত থাকে সেজন্য বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে যুব জাগরণ তৈরির লক্ষ্যে কাজ করবে।

আমরা শপথ করছি যে, বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়ক ধরে যাত্রা করছে এবং উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে। উন্নয়নের এই অগ্রযাত্রায় আসন্ন সংসদ নির্বাচন অত্যন্ড গুরুত্বপূর্ণ। যুব-তারুণ্যের ভোটেই যেন বাংলাদেশের উন্নয়ন-অগ্রযাত্রার ধারা অব্যাহত থাকে সে লক্ষ্যে আওয়ামী যুবলীগ কাজ করে যাবে।

আমরা শপথ করছি যে, এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে যে সরকার গঠিত হবে সেই সরকারই দেশে স্বাধীনতার রজতজয়ন্তী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানে শততম জন্মবার্ষিকী পালন করবে।যুব-তারুণ্যের ভোট উৎসবই পারে বাংলাদেশকে একটি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলতে যে বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী উদযাপিত হবে একটি সার্বজনীন উৎসবের মধ্য দিয়ে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কাজ করবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি