বুধবার ১৪ নভেম্বর ২০১৮



আমরা ৫০হাজার মেট্রিক টন চাল রপ্তানী করতে সক্ষম হয়েছি : শিল্পমন্ত্রী আমু


আলোকিত সময় :
08.09.2018

ধর্মপাশা (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি :

শিল্প মন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, ১৯৯৬সালে আমরা ক্ষমতায় আসার পর এই দেশে খাদ্য ঘাটতি ছিল ৪০হাজার মেট্রিক টন । আর ২০০৯সালে আবার ক্ষমতায় আসার পর তা ছিল ২৬হাজার মেট্রিক টন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে এই দেশে কোনো খাদ্য ঘাটতি থাকেনা। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণ হয়ে গেছে। ফলে খাদ্য আমদানির পরিবর্তে আমরা ৫০হাজার মেট্রিক টন চাল বিদেশে রপ্তানি করতে সক্ষম হয়েছি।
তিনি বলেন, তৎকালীন ্উপমহাদেশের শ্রেষ্ঠ বৈজ্ঞানিক ড.কুদরত ই-খোদার নেতৃতে দেশ স্বাধীন হওয়ার পর এই দেশে বঙ্গবন্ধু একটি শিক্ষা কমিশন করেছিলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুুিজবুর রহমান কে হত্যার পর সেটি আর আর বাস্তবায়ন হয়নি। ২০১০সালে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী ( শেখ হাসিনার) নির্দেশে মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী সর্বস্তরের নেতা-নেতৃবৃন্দসহ ও বিভিন্ন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করে আন্তজার্তিক বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে একটি যুগোপযোগী শিক্ষানীতি প্রণয়ন করেছেন। আর এর ফলেই শিক্ষা ক্ষেত্রে আমুল পরিবর্তন হয়েছে। কেননা ২০০৯সালে যেখানে এই দেশে যেখানে শিক্ষার হার ছিল মাত্র শতকরা ৪৭ভাগ আর বর্তমানে তা শতকরা ৭২ভাগে উন্নীত হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, ১৯৯৬সালে আমরা ক্ষমতায় আসার পর এই দেশে খাদ্য ঘাটতি ছিল ৪০হাজার মেট্রিক টন । আর ২০০৯সালে আবার ক্ষমতায় আসার পর তা ছিল ২৬হাজার মেট্রিক টন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে এই দেশে কোনো খাদ্য ঘাটতি থাকেনা। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণ হয়ে গেছে। ফলে খাদ্য আমদানির পরিবর্তে আমরা ৫০হাজার মেট্রিক টন চাল বিদেশে রপ্তানি করতে সক্ষম হয়েছি।
মন্ত্রী আরও বলেন, সংবিধান অনুযায়ী আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এতে কোনো সন্দেহ নেই। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এই দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখতে তিনি আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আনার মাধ্যমে এই দেশকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার করার জন্য তিনি উদাত্ত আহ্বান জানান।
সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার ধর্মপাশা ডিগ্রি কলেজটি সরকারিকরণ উপলক্ষ্যে স্থানীয় সাংসদ মোয়াজ্জেম হোসেন রতন কে কলেজ কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে গতকাল শনিবার দুপুরে কলেজ চত্ত¡রে অনুষ্ঠিত গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে শিল্প মন্ত্রুী এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ধর্মপাশা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো.আব্দুল করিম। উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শামীম আহমেদ মুরাদ ও ধর্মপাশা সরকারি কলেজের প্রভাষক মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী মাহমুদ এর সঞ্চালনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সাংসদ মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, শিল্প মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো.আব্দুল হালিম, সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্ম§দ আব্দুল আহাদ, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল, ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ বিলকিস, মধ্যনগর থানা আওয়ামী লীগের সাবেক আহ্বায়ক গিয়াস উদ্দিন নূরী, ধর্মপাশা সরকারি কলেজের প্রভাষক আফরোজ মাহবুবা খান, ধর্মপাশা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোজাম্মেল হোসেন রোকন প্রমুখ।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি