মঙ্গলবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮



নিখোঁজের প্রায় ২ মাস পর কুড়িগ্রামে অটো চালকের মরদেহ উদ্ধার করেছে র‌্যাব


আলোকিত সময় :
04.08.2018

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি :

নিখোঁজের প্রায় ২ মাস পর কুড়িগ্রামের রাজারহাটের ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউনিয়নের দেবত্তর এলাকা থেকে আশিকুর রহমান হৃদয় (১৬) নামের এক ব্যাটারী চালিত অটো চালকের মরদেহ উদ্ধার করেছে র‌্যাব।
শনিবার বিকেল ৪টার দিকে উপজেলার দেবত্তর এলাকার রেল লাইনের সংলগ্ন ন্যাটাগাড়ীর বিল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত চঞ্চল নামের একজনকে আটক করে র‌্যাব।
নিহত আশিকুর রহমান হৃদয় পশ্চিম দেবত্তর পশ্চিমপাড়া গ্রামের আরিফুল ইসলামের পুত্র। সে এবারের এসএসসি পাশ করে এবং সংসারের অভাবের কারনে লেখাপড়ার পাশাপাশি মাঝে মধ্যে ভাড়া নিয়ে অটো রিকসা চালাতো।
আশিকুর রহমান হৃদয় হত্যা মামলার অভিযুক্ত দুই আসামীর মধ্যে চঞ্চল (২৫) কে ঢাকার উত্তর খান থেকে র‌্যাব-১১ এর একটি টিম সিনিয়র এএসপি আরিফের নেতৃত্বে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার স্বীকারউক্তি অনুযায়ী চঞ্চলকে নিয়ে এসে আশিকুর রহমান হৃদয়ের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
আসামী চঞ্চল জানায়, তার সহপাঠি তানজিলকে সাথে নিয়ে কুড়িগ্রাম রেল স্টেশনে পরিকল্পনা মাফিক আশিকুর রহমানের অটো ভাড়া নিয়ে তাকে হত্যা করে বিলের একটি পুকুরে পানির নীচে খুঁটির সাথে লাশ বেঁধে রাখা হয়েছিল। এরপর লাশ রাখার ৩ দিন পর তারা দুজনে এসে লাশ ঠিক আছে কিনা তা দেখে যায়। আশিকুরকে হত্যার পর ৪০ হাজার টাকায় অটোটি বিক্রী করা হয়ছে।
রংপুর র‌্যাব-১৩ এর অধিনায়ক মোঃ মোজাম্মেল হক জানায়, নিহত আশিকুর রহমান হৃদয় গত ৯ জুন নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় অভিযোগের প্রেক্ষিতে ছায়া তদন্ত শেষে আশিকুর রহমান হৃদয়কে হত্যার সাথে জড়িত আসামী চঞ্চলকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার সাথে জড়িত অপর আসামী তানজিলকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি