শুক্রবার ২০ জুলাই ২০১৮



বাংলাদেশ পেরেছে, বাংলাদেশই পারবে : প্রধানমন্ত্রী


আলোকিত সময় :
04.07.2018

নিজস্ব প্রতিবেদক :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন ‘জাতিসংঘ যখনই কোনো উদ্যোগ নিয়েছে আমরা সেটাকে গ্রহণ করেছি এবং সাফল্য দেখিয়েছি। অনেকে স্বাধীন বাংলাদেশকে তলাবিহীন ঝুড়ি আখ্যা দিয়েছিল। কিন্তু বাংলাদেশ থেমে যায়নি। বাংলাদেশ পেরেছে, বাংলাদেশই পারবে। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। আমাদের লক্ষ্য দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশকে সুখী-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করা। আমরা সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।’

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের মধ্যে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর শেষে সমাপনি বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

বাংলাদেশের উন্নয়ণ পরিকল্পনার প্রেক্ষাপট উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘২০০৭ সালে আমাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সেই সময় আমাকে রাজনীতি থেকে বিতাড়নের ষড়যন্ত্র চলছিল। আমি জেলখানায় থাকা অবস্থায় ক্ষমতায় গেলে দেশ ও জনগণের উন্নয়নের জন্য কী করতে হবে সেসব ইশতেহারের পয়েন্ট আমি লিখে রেখেছিলাম। এরপর তা নির্বাচনের সময় দিনবদলের ইশতেহারে যোগ করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা রাজনীতি করি জনগণের জন্য। আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য ক্ষমতা ভোগ করা নয়, জনগণের সেবা করা। জনগণের সেবা করার জন্যই আমরা রাজনীতি করি।’

সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা পথ-প্রদর্শকের ভূমিকা পালন করি। আর আপনারা দক্ষতার সঙ্গে সেগুলো বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। এ জন্য আপনাদের ধন্যবাদ জানাই।’

বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট দিয়েছি। এ বছর ১ লাখ ৭০ হাজার কোটি টাকার কর্মসম্পাদন পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। এখন এগুলোর দ্রুত বাস্তবায়ন করা দরকার।’

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বেগম ইসমত আরা সাদেক, মন্ত্রিপরিষদ সচিব সফিউল আলম ও প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব নজিবুর রহমান বক্তব্য রাখেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি