শুক্রবার ১৬ নভেম্বর ২০১৮
  • প্রচ্ছদ » জাতীয় » টেকনাফে ঈদ উপহার তুলে দিলেন মন্ত্রী মায়া
    প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে বরাদ্দ ১০ কোটি টাকা



টেকনাফে ঈদ উপহার তুলে দিলেন মন্ত্রী মায়া
প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে বরাদ্দ ১০ কোটি টাকা


আলোকিত সময় :
12.06.2018

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বল প্রয়োগে বাস্তুচ্যুত ১১ লক্ষাধিক মিয়ানমার নাগরিক কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলায় আশ্রয় গ্রহণ করেছেন। এর ফলে কক্সবাজার জেলার উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলাসহ আশপাশের উপজেলার লোকজন বিভিন্নভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

১২ জুন (মঙ্গলবার) দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, বীরবিক্রম, আজ উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলায় উপস্থিত থেকে দুস্থ ও গরীব পরিবারদের এ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন।

এসকল বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার নাগরিকের আশ্রয়ের ফলে স্থানীয় এলাকায় বাজার মূল্য, শ্রমবাজার, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যসহ সামাজিক ও অর্থনৈতিক জীবনযাত্রা ব্যাপকভাবে প্রভাবিত হয়েছে। স্থানীয় জনসাধারণের ওপর ক্ষতির বিষয়টি বিবেচনা করে ঈদুল ফিতরের পূর্বে তাদের সহায়তার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ত্রাণ তহবিল থেকে কক্সবাজার জেলায় ১০ কোটি টাকা বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে।

এ উপলক্ষে উখিয়া উপজেলার বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিব মহিলা কলেজ মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গরীব ও দুস্থ মানুষের পাশে আছেন বলেই তিনি মমতাময়ী মা হিসেবে বিশ্বে পরিচিত। তিনি বলেন, রোহিঙ্গা নাগরিকদের আগমনের ফলে উখিয়া ও টেকনাফের স্থানীয় অধিবাসীদের যে ক্ষতি হয়েছে সরকার সে সম্পর্কে সচেতন রয়েছে। শীঘ্রই রোহিঙ্গা নাগরিকদের ভাষাণচরে স্থানান্তর করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, মিয়ানমার নাগরিকদের নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার মধ্যেই রয়েছে একমাত্র সমাধান।

এ অর্থের মাধ্যমে কক্সবাজার জেলার উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলাসহ বিভিন্ন উপজেলার ৩৩ হাজার ৩৩৪ পরিবারকে নগদ অর্থ সহায়তাসহ বিভিন্ন উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে পোলাও চাল, সেমাই, চিনি, সয়াবিন তেল, গুড়াদুধ, রোজার শরবত ইত্যাদি। প্রত্যেক পরিবারকে নগদ ২ হাজার টাকা করেও প্রদান করা হয়েছে।

কক্সবাজার, চট্টগ্রাম ও পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকায় যেসব অধিবাসী পাহাড়ের ঢালে বসবাস করছেন অতিদরিদ্র মানুষ। তাদেরকে সরিয়ে নেওয়ার জন্য মন্ত্রী জেলা প্রশাসনকে অনুরোধ করেন।

এদিকে, জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে পাঠানো উপহার সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়ের সচিব মো. শাহ কামাল, বিভাগীয় কমিশনার মো. আব্দুল মান্নান, এনডিসির শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাশন কমিশনার মোঃ আবুল কালাম, জেলা পুলিশ সুপার ড. ইকবাল হোসেন, সাবেক সাংসদ ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপক মো. আলী, টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রবিউল হাসান, টেকনাফ মডেল থানার ওসি রনজিত কুমার বড়–য়া, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা পরিষদের সদস্য শফিক মিয়া, জেলা আওয়ামীলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মো. ইউনুছ বাঙ্গালী, হ্নীলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এইচ কে আনোয়ার। এসময় উপস্থিত ছিলেন,প্যানেল চেয়ারম্যান আবুল হোসন, হৃীলা ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা সদস্যা ফরিদা বেগম, নাছরিন পারভিন, মর্জিনা আক্তার।

উল্লেখ্য,হ্নীলা ইউনিয়নে দুই হাজার পরিবার, বাহারছড়া ইউনিয়নে ১ হাজার পরিবার, হোয়াইক্যং ইউনিয়নে ১ হাজার ৮’শ পরিবার, টেকনাফ সদর, সেন্টমার্টিন, সাবরাং ইউনিয়নসহ ১ হাজার, পৌরসভায় ২’শ পরিবারসহ পুরো উপজেলায় ৬ হাজার পরিবারকে ১ কোটি ২০লাখ নগদ অর্থ প্রদান করা হয়। প্রতি প্যাকেটে ২ কেজি চাল, ৫০০ গ্রাম দুধ, ১ লিটার তৈল, ১ কেজি চিনি, ৪ প্যাকেট লাচ্ছা সেমাই, ১টি রুহ- আফজা, ১ টি শাড়ি লুঙ্গী রয়েছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি