বৃহস্পতিবার ২৪ মে ২০১৮



বাঘায় বিশ্ব থ্যালাসেমিয়া দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত


আলোকিত সময় :
08.05.2018

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি :

‘বিয়ের আগে পরীক্ষা করলে রক্ত,সন্তান হবে থ্যালাসেমিয়া মুক্ত’ এ প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে রাজশাহীর বাঘায় বিশ্ব থ্যালাসেমিয়া দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার ((৮-৫-১৮) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আয়োজনে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
জনসাধারণের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে স্বাগত বক্তব্যকালে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা.আসাদুজ্জামান বলেন, ত্রæটিপূর্ণ হিমোগেøাবিনের জিনের কারণে থ্যালাসেমিয়া হয়। বাবা অথবা মা,অথবা বাবা-মা উভয়েরই থ্যালাসেমিয়া জিন থাকলে বংশানুক্রমে এটি সন্তানের মধ্যে ছড়ায়।
শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. সঞ্চিতা সরকার বলেন,স্বামী-স্ত্রী দু’জনই থ্যালাসেমিয়ার বাহক। একজন থ্যালাসেমিয়া আরেকজন হিমোগেøাবিন এর বাহক। স্বামী-স্ত্রী দু’জনের একজন সম্পূর্ণ সুস্থ থাকলে নবজাতকের থ্যালাসেমিয়া হবার সম্ভাবনা থাকেনা। তবে নবজাতক থ্যালাসেমিয়া বাহক হতে পারে,যা কোন রোগ নয়। রোগের উপসর্গ ও প্রতিরোধ বিষয়ে আলোচনাকালে তারা বলেন, রক্ত সঞ্চালনের মাধ্যমে চিকিৎসা দেওয়া হয়। থ্যালাসেমিয়ার কার্যকরি চিকিৎসা অস্থিমজ্জা প্রতিস্থাপন। যা অত্যন্ত ব্যয় বহুল।
অনুষ্ঠানের সভাপতি ডা. সিরাজুল ইসলাম বলেন, রোগ নির্নয় করে এর সচেতনায় একমাত্র উত্তম পন্থা। বিয়ের আগে রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে বাহকের থ্যালাসেমিয়া মুক্ত রাখা সম্ভব। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন,সহকারি কমিশনার (ভ’মি) যোবায়ের হোসেন। শামীমা আকতারের সঞ্চালনায় অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্য রাখেন আব্দুল লতিফ মিঞা,নুরুজ্জামান প্রমুখ। বক্তারা থ্যালাসেমিয়া প্রতিরোধে সচেতনতামূলক প্রচারণাসহ উপজেলা পর্যায়ে সরকারি মেডিকেল হাসপাতালে রোগ নির্ণয়ের ব্যবস্থা গ্রহণ ও বিয়ের আগে বাধ্যতামূলক রক্ত পরীক্ষার ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি করেণ।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি