বৃহস্পতিবার ২৪ মে ২০১৮



কালীগঞ্জে ট্রাক্টর দিয়ে বালি ও মাটি পরিবহন-দূর্ভোগে পথচারীরা


আলোকিত সময় :
07.05.2018

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ

গাজীপুরের কালীগঞ্জে মাটি পরিবহনে ব্যবহৃত ট্রাক্টরের বেপরোয়া চলাচলে জনসাধারণ অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। বছরব্যাপী বিভিন্ন রাস্তায় অনবরত বালি ও মাটি বহন করায় রাস্তাগুলো চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। সামান্য বৃষ্টি হলে রাস্তাগুলো মরণ ফাঁদে পরিণত হয়ে ঘটছে ছোট-বড় নানা দূর্ঘটনা। কৃষি জমি থেকে মাটি কেটে বিভিন্ন ইট ভাটায় বিক্রির ফলে নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ। কৃষি জমির কাঁটা মাটি অবৈধ ট্রাক্টর লড়ি দিয়ে পরিবহনের ফলে নষ্ট হচ্ছে বিভিন্ন রাস্তা ঘাট।
জানা যায়, কালীগঞ্জ উপজেলার পৌর এলাকা ও আশে পাশের গ্রাম থেকে টপসয়েল কেটে এনে ইটভাটায় ইট তৈরির কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে। পৌরসভার সরকারী খাদ্য গুদাম থেকে শুরু করে শহীদ ময়েজউদ্দিন সেতু পর্যন্ত শীতলক্ষা নদীর তীরে গড়ে উঠেছে কয়েক শত বালির গদি। বালির গদি থেকে উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলে অবৈধ ট্রাক্টর ও লড়িতে করে পরিবহন করছে বাড়ী তৈরির বালি, ইটা, রড, সিমেন্টসহ বিভিন্ন নির্মাণ সামগ্রী। অবৈধ ট্রাক্টরগুলো বালি ও মাটির উপরে কোন প্রকার পলিথিন বা চটের আবরণ ছাড়াই পরিবহন করছে। উপজেলার পূর্ব পাশে কালীগঞ্জ হতে বাইপাস পর্যন্ত সড়কটি দিয়ে বালি ও মাটি ভর্তি ট্রাক, ট্রাক্টর ও লড়ি অনবরত চলাচল করায় সামান্য বৃষ্টিতেই কাদায় পরিণত হয়। শুষ্ক মৌসুমে রাস্তাটি ধুলায় অন্ধকার হয়ে পড়ে। এই রাস্তাটি সাধারণ জনগণসহ বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা। ফলে গ্রীষ্ম বর্ষায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পথচারীদের এই রাস্তায় চলাচল করতে হচ্ছে।
এ বিষয়ে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার খন্দকার মু. মুসফিকুর রহমান বলেন তাদেরকে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আইনের আওতায় আনা হবে।
এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ ছাদেকুর রহমান আকন্দ বলেন, ধুলা-বালিযুক্ত রাস্তায় চলাচলের কারণে পথচারীদের নিউমোনিয়া ও শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

ক্যাপশনঃ অবৈধ ট্রাক্টর দিয়ে আবরণ ছাড়াই পরিবহন করা হচ্ছে বালি। ছবিটি পৌরসভার পুরাতন সোনালী ব্যাংক মোড় হতে তোলা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি