বৃহস্পতিবার ১৬ অগাস্ট ২০১৮
  • প্রচ্ছদ » জাতীয় » বিএনপি ২০১৪ সালে নির্বাচন ঠেকাতে পারেনি, এবারও পারবে না : প্রধানমন্ত্রী



বিএনপি ২০১৪ সালে নির্বাচন ঠেকাতে পারেনি, এবারও পারবে না : প্রধানমন্ত্রী


আলোকিত সময় :
19.02.2018

অনলাইন ডেস্ক : সংবিধান অনুযায়ী সময়মতো নির্বাচন হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘বিএনপি ২০১৪ সালে নির্বাচন ঠেকানোর চেষ্টা করেছে, পারেনি। এবারও পারবে না। জনগণের ওপর যে দলের আস্থা আছে, যারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে, তারা নির্বাচনে অংশ নেবে। বিএনপি আগামী নির্বাচনে অংশ না নিলে আমাদের কিছুই করণীয় নেই।’ আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিলের (ইফাদ) গভর্নিং কাউন্সিলের ৪১তম বার্ষিক বৈঠকে যোগ দিয়ে ইতালি ও ভ্যাটিক্যান সিটি থেকে দেশে ফেরার পর সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে  তিনি এসব কথা বলেন।

খালেদা জিয়াকে কারামুক্ত না করে বিএনপি নির্বাচনে যাবে না বলে ঘোষণা দিয়েছে। দলটির এই ঘোষণা সম্পর্কে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন,  ‘এটা তো নতুন কিছু না। আপনাদের নিশ্চয় স্মরণ আছে, ২০১৪ সালের তারা নির্বাচন করবে না বলে, নির্বাচন ঠেকানোর নামে আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। প্রায় সত্তরটা সরকারি অফিস তারা পুড়িয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের হত্যা করেছে। গাড়িতে পেট্রোলবোমা মেরে মানুষ হত্যা করেছে। তারা ২০১৩, ২০১৪,২০১৫ সালে এই সময়ের মধ্যে তারা প্রায় পাঁচ শয়ের মতো মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করেছে। সাড়ে তিন হাজারেরও বিশ মানুষকে পুড়িয়েছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘নির্বাচন হচ্ছে মানুষের অধিকার। তার সাংবিধানিক অধিকার। এখন বিএনপি বলছে নির্বাচনে যাবে না। আপনারা দুর্নীতির বিরুদ্ধে এত কথা বলেন, সেই দুর্নীতির দায়ে দণ্ডিত নেত্রীকে ছাড়া  বিএনপি নির্বাচনে যাবে না।  রায়টা তো আর আমি দেইনি। রায় দিয়েছেন কোর্ট। এখন  তারা নির্বাচনে না গেলে আমাদের কিছুই করার নেই।’



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি