সোমবার ১৮ জুন ২০১৮



ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতি অযৌক্তিক দাবি গ্রহণযোগ্য নয়


আলোকিত সময় :
07.03.2017

বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রোগীর স্বজনদের মারধরের ঘটনায় চার শিক্ষানবিশ চিকিৎসকদের ইন্টার্নশিপ ছয় মাসের জন্য স্থগিতের পর ইন্টার্ন ডাক্তাররা গত বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা থেকে কর্মবিরতি শুরু করে। ইন্টার্ন ডাক্তাররা কর্মবিরতি পালন করলেও হাসপাতালের চিকিৎসকরা অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করে চিকিৎসাসেবা স্বাভাবিক রাখেন। ওই হাসপাতালে কয়েকদিন ধরে চলে ইন্টার্ন চিকিৎকদের কর্মবিরতি। শনিবার ইন্টার্ন চিকিৎসকরা হাসপাতালের সামনে মানববন্ধন করেন। অবশ্য ইন্টার্ন চিকিৎসকদের অনুপস্থিতিতে চিকিৎসার কাজে কোনো ব্যাঘাত ঘটছে না। দায়িত্বরত চিকিৎসকরা কর্তৃপক্ষের নির্দেশে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করেন।

ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতির বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়নি। তবে সৃষ্ট পরিস্থিতি মোকাবেলায় বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণ করে প্রশাসন। চিকিৎসাসেবা সঠিকভাবে হচ্ছে কিনা সেজন্য দুটি মনিটরিং টিম গঠন করা হয়। ওই মনিটরিং টিম হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা ব্যবস্থা দেখবে। যদি কোথাও চিকিৎসাসেবা ব্যাহত হয় তাৎক্ষণিক কর্তৃপক্ষকে অবহিত করলে ব্যবস্থা গৃহীত হবে। পাশাপাশি ইন্টার্ন চিকিৎসকদের সাথে সমঝোতার চেষ্টা করা হয়। শনিবার সকালে হাসপাতালের বিভাগীয় প্রধান এবং রেজিস্ট্রারদের নিয়ে পরিচালনা কমিটির সভা হয়। সভায় চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া হয়।
ইন্টার্ন ডাক্তারদের কর্মবিরতি পালন কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। এর ফলে একদিকে চিকিৎসাসেবা যেমন ব্যাহত হচ্ছে তেমনি প্রশাসনিক নিয়ম-শৃঙ্খলার ব্যত্যয় ঘটছে। জনগণ মনে করে, রোগীর স্বজনের সাথে যে ব্যবহার করা হয়েছে তা মোটেও ঠিক হয়নি। ভাবি ডাক্তারদের আচরণ ভবঘুরে অর্ধশিক্ষিত-অল্পশিক্ষিত গুণ্ডা-মস্তানদের মতো হতে পারে না। তদন্ত কমিটিও প্রতিবেদনে সঠিক তথ্য তুলে ধরেছেন এবং ন্যায্য সুপারিশ করেছেন। যেজন্য ওই চারজনের বিরুদ্ধে প্রশাসনিকে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এমনকি জনগণের মধ্যে এমনও ক্ষোভ আছে যে তাদের বিরুদ্ধে গৃহীত পদক্ষেপ অপ্রতুল। এমনকি স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্বয়ং নিজে এই কর্মবিরতিকে অযৌক্তিক বলেছেন। এই পরিপ্রেক্ষিতে আমরা তাদের কর্মবিরতির নিন্দা করছি। আগামীতে তারা যেন এ ধরনের কর্মকাণ্ডে লিপ্ত না হয় সেজন্য সতর্ক হওয়াই বাঞ্ছনীয়।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি